,

ThemesBazar.Com

কোটাবিরোধী আন্দোলনে আমাদের সমর্থন আছে: জাবি উপাচার্য

Spread the love

কোটাব্যবস্থাকে জাতির জন্য ‘লজ্জাজনক’ আখ্যায়িত করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম কোটাবিরোধী আন্দোলনকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন।

 

কোটাব্যবস্থাকে জাতির জন্য ‘লজ্জাজনক’ আখ্যায়িত করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম কোটাবিরোধী আন্দোলনকে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘৫৬ শতাংশ কোটা আসলেই একটি জাতির জন্য লজ্জাজনক। এ আন্দোলনে আমাদের সমর্থন আছে, আমরা তোমাদের পাশে আছি। প্রয়োজন হলে তোমাদের সাথে আমরা একসাথে আন্দোলন করব।’

৯ এপ্রিল, সোমবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে সরকারি চাকরিতে বিদ্যামান কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটক সংলগ্ন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, ‘পুলিশি হামলা চালিয়ে এ আন্দোলন দমানো যাবে না। এ দাবি আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে হবে। কিন্তু সরকার তা না করে শিক্ষার্থীদের ওপর একের পর এক হামলা চালাচ্ছে। ইতোমধ্যেই প্রচুর রক্তপাত হয়েছে। আমরা আর রক্তপাত চাই না।’

‘আমি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এবং জাহাঙ্গীর কবির নানককে বিষয়টি জানিয়েছি। কেন আমার শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশ হামলা করে রক্তাক্ত করল, আমি তার জবাব চেয়েছি’, যোগ করেন তিনি।

সে সময় উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপকড. আমির হোসেনশিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক বশির আহমেদসহ জ্যেষ্ঠ শিক্ষকেরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে সোমবার দুপুরে কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশ হামলা চালায়। দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটক সংলগ্ন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে। আন্দোলনকারীদের হঠাতে পুলিশ জলকামান, টিয়াশেল এবং রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।

সে সময় পুলিশের গুলি ও টিয়ারশেলের আঘাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরসহ শতাধিক শিক্ষার্থী আহত হয়।  আহতদের একাংশকে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টার এবং প্রায় অর্ধশত শিক্ষার্থীকে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ৬ জনের অবস্থা গুরুতর।

Print Friendly, PDF & Email

ThemesBazar.Com

      আরো পড়ুন