ভারতের নীতিতে বদল দেখছে না বিএনপি


জুনe ১০, ২০১৮
Spread the love

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রশ্নে ভারতের বিদেশনীতির পরিবর্তন দেখছে না বিএনপি। তবে তাদের দৃষ্টিভঙ্গি বদলেছে বলে মনে করছে দলটি। ভারত সফর নিয়ে দলটির নেতাদের মূল্যায়নে এমনটি উঠে এসেছে। তবে বাংলাদেশের আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ করার বিকল্প যে নেই; এমন ভাবনাও এসেছে ভারতের নীতিনির্ধারকদের মাঝে। ভারত চায়, বাংলাদেশে ‘কোনো কারণে’ ক্ষমতার পরিবর্তন হলেও যাতে বিএনপির সঙ্গে তাদের সম্পর্ক ভালো থাকে। এ বিষয়টি নিয়েও তারা সতর্ক আছে।

ভারত সফরে যাওয়া এক নেতা এ বিষয়ে বলেন, শেখ হাসিনা প্রশ্নে ভারত মনে করে, তার সময়ে দ্বিপক্ষীয় অনেক সমস্যার সমাধান হয়েছে। তাদের অনেক সমস্যা শেখ হাসিনা নিষ্পত্তি করেছেন। তবে নির্বাচন যে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো করা সম্ভব নয়, তাও মনে করে ভারত।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু এবং তারেক রহমানের উপদেষ্টা এবং বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক হুমায়ুন কবির গত সপ্তাহে দিল্লি যান।

বাংলাদেশের আগামী নির্বাচনের আগে বিএনপির প্রতিনিধি দলের এ সফরকে গুরুত্বপূর্ণ মনে করা হচ্ছে। মাসখানেক আগে আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দলও ভারত সফর করেছে।

আবদুল আউয়াল মিন্টু আমাদের সময়কে বলেন, এটি বিশেষ কোনো সফর নয়। বিএনপি কয়েকবার রাষ্ট্রক্ষমতায় ছিল। আমাদের মতো দল পার্শ¦বর্তী দেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখা রাজনৈতিক সৌহার্দের মধ্যে পড়ে। এরই অংশ হিসেবে সেখানকার সরকার ও বিরোধী দলের নেতাদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ হয়েছে।

কংগ্রেসের সভাপতি রাহুল গান্ধী, বিজেপির সাধারণ সম্পাদক রামলাল, বিজেপি নেতা বিজয়জলী, রাজীব গান্ধী ফাউন্ডেশন এবং অর্গানাইজেশন অব রিসার্চ ফাউন্ডেশন (ওআরএফ), বিবেকানন্দ ফাউন্ডেশন, শ্যামা প্রসাদ ফাউন্ডেশন ও ইনস্টিটিউট অব ডিফেন্স স্ট্র্যাটেজিক এনালাইসিস (ইডসা) কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন বিএনপি নেতারা। এ ছাড়া দেশটির জাতীয় নিরাপত্তা এজেন্সির উচ্চপদস্থ ও গুরুত্বপূর্ণ দুই কর্মকর্তার সঙ্গে বৈঠক হয়।

জানা গেছে, বিএনপি নির্বাচনে আসবে কিনা এ প্রশ্নটি সবাই করেছে। এ ব্যাপারে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি, নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনসহ কয়েকটি শর্ত তুলে ধরা হয়। এ ছাড়া বিাচরবহির্ভূত হত্যাকা-, বিরোধী রাজনৈতিক নেতাদের বিরুদ্ধে মামলা, গণহারে গ্রেপ্তার, গণতান্ত্রিক কর্মসূচি পালনে বাধা দেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

বিএনপি নেতারা জানিয়েছেন, রাহুল গান্ধীর সঙ্গে প্রায় দেড় ঘণ্টার বৈঠক হয়েছে। তিনি খুবই আন্তরিক ছিলেন।

দৃষ্টিভঙ্গি কেমন বদলেছে এমন বিষয়ে এক নেতা বলেন, এর আগে ভারতের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা কিংবা সরকারি ও বিরোধী দলের নেতারা অনেক বিষয়ে বিএনপি নেতাদের পাশ কাটিয়ে যেতে চাইতেন, এবার তেমনটি হয়নি। বরং আন্তরিকতার সঙ্গে বৈঠক হয়েছে এবং অনেক সময় দিয়েছেন সবাই। কিছু কিছু বিষয় উভয়পক্ষ একমতে এসেছে।

দিল্লিতে প্রেসক্লাবের সভাপতিসহ টেলিগ্রাফ, হিন্দুসহ কয়েকটি জাতীয় দৈনিকের সিনিয়র সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন বিএনপি নেতারা।

জামায়াতের বিষয়ে আলোচনা হলেও দলটির সঙ্গ ত্যাগ করার কথা সরাসরি কেউ বলেননি। তবে জামায়াতের বিষয়ে দেশটির নেতিবাচক ধারণা যে আছে তা পরিষ্কার।

উৎসঃ   আমাদের সময়

এই সম্পর্কীও খবর

Recent Posts

সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ হারাল একই পরিবারের তিনজন। সোমবার সন্ধ্যায় নরসিংদীর ...
জুনe ১৮, ২০১৮ বিস্তারিত......
বিশ্বকাপ শুরুর আগে এডেন হ্যাজার্ড বলেছিলেন, এবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় তাদের মূ...
জুনe ১৮, ২০১৮ বিস্তারিত......
বেলজিয়ামকে
প্রথমার্ধে দাপটের সঙ্গে খেলেছে বেলজিয়াম। বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল যোজন যো...
জুনe ১৮, ২০১৮ বিস্তারিত......

Related posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *