বরিশালে মেয়র হতে চান দুই ছাত্রনেতা


জুনe ১০, ২০১৮
Spread the love

বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী হওয়ার কথা জানিয়েছেন দুই ছাত্র নেতা। এদের মধ্যে একজন অনেক আগে থেকেই জনসংযোগ চালাচ্ছেন। সম্প্রতি সক্রিয় হয়েছেন আরও এক জন।

আগামী ৩০ জুলাই যে তিন মহানগরে ভোট হচ্ছে, তার একটি বরিশাল। ভোটের তারিখ ঘোষণার পরপরই মাঠে ব্যস্ত আওয়ামী লীগ ও বিএনপি থেকে শুরু করে সব দল।

বরিশালে দুই প্রধান দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী কে হতে পারেন, সে বিষয়ে এখনও আভাস পাওয়া যাচ্ছে না। দুই দলেরই সম্ভাব্য একাধিক প্রার্থী ভোটে আগ্রহী।

মেয়র প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে আগেই ঘোষণা দিয়েছেন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক সম্পাদক ও বরিশাল জেলা শাখার সাবেক মনীষা চক্রবর্তী। সম্প্রতি ছাত্রমৈত্রী কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি ও বরিশাল মহানগর শাখার সভাপতি শামিল শাহরোখ তমালও ভোটের প্রচারে নামার ঘোষণা দিয়ছেন।

এই দুজনেই তৃণমূল পর্যায়ে ছাত্ররাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। এই দুই ছাত্রনেতা মনে করেন, বরিশাল নগরবাসীর জন্য তরুণ নেতৃত্ব দরকার। নইলে এই নগরের উন্নয়ন করা দুঃসাধ্য হয়ে দাঁড়াবে।

ছাত্রমৈত্রীর নেতা শাহরোখ তমাল ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘পুরোনো ভার্সন বাদ দিয়ে নতুন ভার্সন দরকার বরিশাল নগরীর জন্য। তাই নগরবাসীর সেবা করার জন্যই আমি মেয়র প্রার্থী হতে আগ্রহী হয়েছি।’

‘এই নগরী অন্যসব নগরী থেকে অনেক পিছিয়ে। বিভেদ আর দলাদলির কারণে নিঃশ্বাস নিতে পারছে না নগরবাসী। বর্তমান মেয়র এই রমজান মাসেও নগরী পরিষ্কার রাখতে ব্যর্থ। রোজাদাররা এই দুর্গন্ধ সহ্য করে রাস্তায় চলাচল করলেও তার চোখে এগুলো বাঁধে না।’

আওয়ামী লীগ-বিএনপির বাইরে ভোটে দাঁড়িয়ে কতটা সফল হবেন-এমন প্রশ্নে তমাল বলেন, ‘নোংরা রাজনীতি বাদ দিয়ে সুষ্ঠু রাজনীতির মাধ্যমে এই নগরী পরিচালনা দরকার। তবে সেই সুষ্ঠু ধারার লোক খুঁজে পাচ্ছে না নগরবাসী। তারাও বিভ্রান্ত এবার নির্বাচনে কোন প্রার্থীকে ভোট দেবে। সবাই নতুন কাউকে চাচ্ছে। এরই প্রেক্ষিতে আমি মেয়র নির্বাচন করব।’

‘মেয়র নির্বাচিত হলে নগরবাসীর সকল অসুবিধা নিরসনের চেষ্টা করব। কেননা আমি আশ্বাসে বিশ্বাসী নই, কাজ করে দেখাবো নগরীর জন্য।’

এদিকে বহু আগে থেকেই প্রচারণা চালানো চিকিৎসক মনীষা চক্রবর্তী বলেন, ‘এই নগরীর অবহেলিত মানুষের জন্য কোনো জনপ্রতিনিধিই কাজ করে না। এই অবহেলিত মানুষের পক্ষে আমরা কাজ করছি।’

‘আমাদের চিন্তা মানুষের সেবা করা। এই নগরীতে তরুণ নেতৃত্ব দরকার। এছাড়া নগরীর উন্নয়ন কোনো মতেই সম্ভব না। এই সিটি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হয়েছি। যদি নির্বাচত হই তাহলে নগরবাসীকে নিশ্চিন্ত রাখতে কাজ করব। ব্যক্তি স্বার্থে নয়, কাজ করব জনগণের স্বার্থে।’

অপরদিকে বরিশাল আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ভোট কেন্দ্র ও ভোটারদের খসড়া তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। বরিশাল নগরীর ৩০টি ওয়ার্ডে মোট ভোট কেন্দ্র রয়েছে ১২৭টি এবং ভোটার সংখ্যা দুই লক্ষ ৭১ হাজার ৯৫৯জন।

ঢাকাটাইমস

এই সম্পর্কীও খবর

Recent Posts

সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ হারাল একই পরিবারের তিনজন। সোমবার সন্ধ্যায় নরসিংদীর ...
জুনe ১৮, ২০১৮ বিস্তারিত......
বিশ্বকাপ শুরুর আগে এডেন হ্যাজার্ড বলেছিলেন, এবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় তাদের মূ...
জুনe ১৮, ২০১৮ বিস্তারিত......
বেলজিয়ামকে
প্রথমার্ধে দাপটের সঙ্গে খেলেছে বেলজিয়াম। বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল যোজন যো...
জুনe ১৮, ২০১৮ বিস্তারিত......

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *