হাইস্কুলের প্রেমই মাদক সম্রাজ্ঞী বানায় পাপিয়াকে


Spread the love

মাত্র ২৫ বছরের সুন্দরী তরুণী। রূপ-লাবণ্য দেখে কেউ বিশ্বাসই করবে না ঢাকার তালিকাভুক্ত মাদক সম্রাজ্ঞীদের একজন তিনি। সারা দেশে মাদকবিরোধী অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকেই যাকে হন্যে হয়ে খুঁজছিল আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। অবশেষে পুরান ঢাকার লালবাগ থেকে মাদক ব্যবসায়ী স্বামীসহ সেই ফারহানা আক্তার পাপিয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

যদিও জেল খাটার অভ্যাস নতুন নয় মাদক সম্রাজ্ঞী তকমা পাওয়া পাপিয়ার জন্য। এর আগেও তিনি বেশ কয়েকবার গ্রেফতার হয়েছেন। কিন্তু যতবারই আটক হয়েছেন, প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় কিছুদিন কারাভোগের পর আবারও ফিরে এসে জড়িয়েছেন অবৈধ মাদক ব্যবসার।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মোহাম্মদপুরের আজিজ মহল্লার আবু হানিফের মেয়ে এই পাপিয়া। তার বেড়ে ওঠাও আজিজ মহল্লার জয়েন্ট কোয়ার্টারে। হাইস্কুলে পড়ার সময়ই জেনেভা ক্যাম্পের মাদক ব্যবসায়ী জয়নাল আবেদিন ওরফে পাঁচুর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন পাপিয়া। বেশ কিছুদিন প্রেমের পর বাচ্চুর সঙ্গেই বিয়ে হয় তার।

বউ হয়ে পাঁচুর সঙ্গে তার জেনেভা ক্যাম্পের বাসায় আসেন পাপিয়া। কিছুদিন সংসার করার পরই পাপিয়াকে মাদক ব্যবসায় সাহায্য করার প্রস্তাব দেন পাঁচু। নারী বলে তাকে কেউ সন্দেহ করবে না এবং খুব সহজেই তার মাধ্যমে ব্যবসার বিস্তার ঘটানো সম্ভব হবে এমন চিন্তা করেই তাকে ব্যবসায় টেনে আনেন পাঁচু।

ব্যবসায় আসার অল্প কিছুদিনের মধ্যেই মাদক কারবারে দক্ষ ও পারদর্শী হয়ে উঠেন পাপিয়া। ব্যবসার প্রসারের ক্ষেত্রে শুধু বুদ্ধি নয় নিজের রুপ-যৌবনও কাজে লাগান তিনি। হেরোইন-গাঁজার পাশাপাশি ইয়াবার ব্যবসাও শুরু করে দেন।

পুলিশের চোখ ফাঁকি দিতে মাদক ব্যবসায় আরেও অনেক সুন্দরী তরুণীকে যুক্ত করেন পাপিয়া। এক সময় নিজেই ওই ব্যবসার হাল ধরে গড়ে তোলে পাপিয়া সিন্ডিকেট। এরপরই মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরসহ বিভিন্ন তালিকায় শীর্ষ মাদক সম্রাজ্ঞী হিসেবে উঠে আসে পাপিয়ার নাম।


মাদক ব্যবসা করে কোটিপতি বনে গেছেন পাপিয়া। শুধু মাদক নয়, অবৈধ অস্ত্রের সমাহারও রয়েছে মাদক সম্রাজ্ঞী তকমা পাওয়া এই তরুণীর কাছে। মোহাম্মদপুরের জেনেভা ক্যাম্প, ইকবাল রোড, পুরান থানা রোড, জহুরি মহল্লা, জয়েন্ট কোয়ার্টার, টিক্কাপাড়া, কৃষি মার্কেট, পাকা ক্যাম্প, পিসিকালচার ও শেখেরটেকের মানুষ এক রকম জিম্মি হয়ে ছিল পাপিয়ার অস্ত্রধারী বাহিনীর কাছে। তার সিন্ডিকেট ওইসব এলাকায় প্রকাশ্যে মাদক বিক্রি করে আসছিল।

বৃহস্পতিবার রাতে লালবাগ এলাকায় অভিযান চালিয়ে জেনেভা ক্যাম্পের সেই শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী জয়নাল আবেদীন পাঁচু ও তার স্ত্রী মাদক সম্রাজ্ঞী ফারহানা আক্তার পাপিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম এন্ড ট্র্যান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি)।

শুক্রবার দুপুরে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে পাঁচু ও তার স্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ২০,০০০ পিস ইয়াবা, ১টি আগ্নেয়াস্ত্র, ৫ রাউন্ড গুলি ও বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক উদ্ধার করা হয়।

তিনি জানান, মাদকের বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর অভিযান শুরু হওয়ার পর আত্মগোপনে চলে যান তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী পাঁচু ও তার স্ত্রী পাপিয়া। তাদের বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর ও মতিঝিলসহ বেশ কয়েকটি থানায় মাদক ও অস্ত্র আইনে বেশকিছু মামলা রয়েছে।

উৎসঃ   পরিবর্তন

এই সম্পর্কীও খবর

Recent Posts

সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ হারাল একই পরিবারের তিনজন। সোমবার সন্ধ্যায় নরসিংদীর ...
জুনe ১৮, ২০১৮ বিস্তারিত......
বিশ্বকাপ শুরুর আগে এডেন হ্যাজার্ড বলেছিলেন, এবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ায় তাদের মূ...
জুনe ১৮, ২০১৮ বিস্তারিত......
বেলজিয়ামকে
প্রথমার্ধে দাপটের সঙ্গে খেলেছে বেলজিয়াম। বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল যোজন যো...
জুনe ১৮, ২০১৮ বিস্তারিত......

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *