,

ThemesBazar.Com
যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স যৌথভাবে সিরিয়ার কয়েকটি সরকারি স্থাপনায় বোমা হামলা চালিয়েছে। দামেস্কের ওপর দিয়ে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়তে দেখা যায়। ছবি: এপির সৌজন্যে

সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্রদের হামলা, রাশিয়া ক্ষুব্ধ

Spread the love

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স একযোগে সিরিয়ার সরকারনিয়ন্ত্রিত বিভিন্ন স্থাপনায় বোমা হামলা চালিয়েছে। আজ শনিবার সকালে সিরিয়ার দুমা শহরে বাশার আল–আসাদের বাহিনীর রাসায়নিক হামলার জবাবে এ বোমা হামলা চালানো হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্স যৌথভাবে সিরিয়ার কয়েকটি সরকারি স্থাপনায় বোমা হামলা চালিয়েছে। দামেস্কের ওপর দিয়ে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়তে দেখা যায়। ছবি: এপির সৌজন্যে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ফ্রান্স ও যুক্তরাজ্যের সঙ্গে যৌথভাবে অপারেশন চালানো হচ্ছে।

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কের কাছে বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পেন্টাগন বিবৃতি দিয়ে বলেছে, মোট তিনটি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানা হয়েছে। একটি হচ্ছে দামেস্কের কাছে রাসায়নিক অস্ত্র প্রস্তুতকারী একটি গবেষণাগার। অন্য দুটি হোমসে রাসায়নিক অস্ত্র রক্ষণাবেক্ষণ কেন্দ্র ও রাসায়নিক অস্ত্রের যন্ত্রাংশ রক্ষণ কেন্দ্র।

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে দাবি করা হয়েছে, সিরিয়ার সরকারি বাহিনী এক ডজনের বেশি ক্ষেপণাস্ত্র লক্ষ্যভ্রষ্ট করেছে।

এ হামলার সময় রাশিয়াকে অবহিত করা হয়নি বলে জানিয়েছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।

হামলার ঘটনায় সিরিয়ার মিত্র দেশ রাশিয়া তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। এক বিবৃতিতে রাশিয়া বলেছে, এ ধরনের আক্রমণের প্রতিক্রিয়া অবশ্যই পাওয়া যাবে।

রাশিয়ার ভাষ্য, আগে থেকে ঠিক করা রাখা দৃশ্য কেবল মঞ্চায়ন করল যুক্তরাষ্ট্র। তাদের ভয় দেখানো হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও এর মিত্রদের সতর্ক করে রাশিয়া বলেছে, এ ধরনের ঘটনা এমনি এমনি ছেড়ে দেওয়া হবে না। এর জন্য সব দায় থাকবে ওয়াশিংটন, লন্ডন আর প্যারিসের।

Print Friendly, PDF & Email

ThemesBazar.Com

      আরো পড়ুন