করোনা আক্রান্ত অর্ধ লাখ মৃত্যুশয্যায়

admin

বিশ্বজুড়ে নভেল করোনাভাইরাসে প্রায় আড়াই লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত ৩৪ লাখের বেশি। এদের মধ্যে অর্ধলাখের বেশি রোগী মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ হারিয়েছেন আরও সাড়ে পাঁচ হাজারের বেশি মানুষ। করোনায় বিপর্যস্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, দেশটিতে এক লাখের নিচেই থাকবে প্রাণহানি। মহামারী মোকাবেলায় যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। জার্মানিতে লকডাউন শিথিলের পর সংক্রমণ বাড়ছে। সিঙ্গাপুরে বিধিনিষেধের কড়াকড়ি উঠে যাবে আগামী ১২ মে। ভারতে লকডাউন আরও দুই সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে। খবর বিবিসি, এএফপি ও রয়টার্সসহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের।

বাংলাদেশ সময় শনিবার রাত ৮টা পর্যন্ত ওয়ার্ল্ডওমিটারসের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪ লাখ ২৪ হাজার ২১০। মারা গেছেন ২ লাখ ৪০ হাজার ৩৮০ জন। অবস্থা আশঙ্কাজনক ৫১ হাজার ৩৫৫ জনের। সুস্থ হয়েছেন ১০ লাখ ৯৩ হাজার ৭৪৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৪ হাজার ৫৫২ জন। মারা গেছেন ৫ হাজার ৬২৪ জন, যা আগের ২৪ ঘণ্টায় ছিল ৬ হাজার ৫৯৩ জন। করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি বিপর্যস্ত ইউরোপ ও আমেরিকা। শুধু যুক্তরাষ্ট্রেই আক্রান্তের সংখ্যা ১১ লাখের বেশি।

দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১ হাজার ৮৯৭ জন, আগের ২৪ ঘণ্টায় যা ছিল ২ হাজার ৩৯০ জন। দেশটিতে মোট আক্রান্ত ১১ লাখ ৩২ হাজার ৩৮, মৃত্যু হয়েছে ৬৫ হাজার ৭৮৩ জনের। যুক্তরাষ্ট্রের পর করোনায় মৃত্যুতে শীর্ষ দেশগুলোর মধ্যে বেশির ভাগই ইউরোপের। ইতালিতে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৭ হাজার ৪২৮ জন। দেশটিতে মারা গেছেন ২৮ হাজার ২৩৬ জন। স্পেনে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৪৫ হাজার ৫৬৭, মৃত্যু হয়েছে ২৫ হাজার ১০০ জনের। ফ্রান্সে আক্রান্ত ১ লাখ ৬৭ হাজার ৩৪৬, মৃত্যু হয়েছে ২৪ হাজার ৫৯৪ জনের। যুক্তরাজ্যে মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৭৭ হাজার ৪৫৪ জন, মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৫১০ জনের।

ট্রাম্পের আশা, মৃত্যু লাখের নিচে থাকবে : দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ প্রাণহানির মুখোমুখি যুক্তরাষ্ট্র। মাত্র তিন মাসে ভিয়েতনাম যুদ্ধে মৃত্যুর সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে। তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আশা, লাখের নিচেই থাকবে মৃতের হিসাব। শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বললেন, আশা করি আমাদের ?প্রাণহানির সংখ্যা থাকবে এক লাখের নিচে। করোনার সংক্রমণ ধীরগতি করতে ৩০ দিনের গাইডলাইনে আমেরিকানদের নেয়া পদক্ষেপকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা করোনা মোকাবেলায় দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে হাজার হাজার জীবন বাঁচিয়েছি। আমি বলতে পারি, আপনারা যদি চান লাখ লাখ জীবন বাঁচবে।

জার্মানিতে হিতে বিপরীত : জার্মানিতে লকডাউন শিথিলের সঙ্গে সঙ্গেই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। গেল ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ হাজার ৬৩৯ জন। এতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৬৪ হাজার ৭৭ জনে। ২৮ এপ্রিল লকডাউন শিথিল করা হয় জার্মানিতে। এরপরই দেখা যায় হিতে বিপরীত চিত্র। গেল পাঁচ দিনে আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা।

এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল ঘোষণা দিয়েছেন, দেশটির জাদুঘর, চিড়িয়াখানাগুলো শিগগিরই চালু করা হবে, ধর্মীয় সম্প্রদায়গুলো তাদের পরিষেবা আবার শুরু করতে পারবে। তবে রেস্তোরাঁগুলো কিছু সময় নিয়ে খোলা হবে। এরই মধ্যে বেশ কিছু দোকান ও স্কুল খুলে দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল বলছেন, সংক্রমণের সংখ্যা কমানোর জন্য আমাদের অবশ্যই কাজ করতে হবে। যদি সংক্রমণ সেভাবে বাড়তে থাকে তাহলে আমরা অবশ্যই ব্যবস্থা নেব।

ইতালির এয়ারপোর্ট চালু ৪ মে : করোনায় বিপর্যস্ত ইতালি অবশেষে লকডাউনের কড়াকড়ি প্রত্যাহার করেছে। আসছে ৪ মে থেকে ফ্লোরেন্সের পেরেটোলা ও রোমের সিয়ামপিনো বিমানবন্দর পুরোদমে আবারও চালু হতে যাচ্ছে। বৃহস্পতিবার ইতালিয়ান পরিবহনমন্ত্রী পাওলা ডি মিশেলি এ ঘোষণা দেন। করোনা পরীক্ষা ও করোনা আক্রান্ত রোগীদের পরিবহনের সুবিধার্থে দেশটির সিভিল এভিয়েশন অথোরিটির অনুরোধে দুটি বিমানবন্দর চালু হতে যাচ্ছে। পাশাপাশি দেশটির দূরপাল্লার রেল সংযোগও কার্যকর করা হবে বলে পরিবহন মন্ত্রণালয়ের এক নোটিশে জানানো হয়েছে। ১৪ মার্চ থেকে ওই দুই এয়ারপোর্টে সব ধরনের ফ্লাইট চলাচল বন্ধ রয়েছে।

ভারতে লকডাউন বাড়ল দুই সপ্তাহ : ভারতে ২৫ মার্চ থেকে দেশব্যাপী লকডাউন শুরু হয়। ধাপে ধাপে সেটা ৪ মে পর্যন্ত করা হয়েছিল। শুক্রবার সন্ধ্যায় নতুন করে এই মেয়াদ আরও দুই সপ্তাহ বাড়িয়ে ১৭ মে পর্যন্ত করা হয়েছে। করোনায় ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২ হাজার ২৯৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে আক্রান্তের মোট সংখ্যা ৩৭ হাজার ৩৩৬ জন, মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২২৩ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৭১ জন। এদিকে কোভিড-১৯ যোদ্ধাদের ধন্যবাদ জানাতে আজ দেশের হাসপাতালগুলোর ওপর আকাশপথে ফুলের পাপড়ি বর্ষণ করবে সেনাবাহিনী। আলোকসজ্জায় সজ্জিত করা হবে জাহাজগুলোকেও। চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী ও অন্যান্য করোনা যোদ্ধাকে শ্রদ্ধা জানাতেই এমন করা হবে বলে শুক্রবার সন্ধ্যায় জানান ভারতের চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াত।

সিঙ্গাপুরে বিধিনিষেধ শিথিল ১২ মে : বিধিনিষেধ শিথিল করতে যাচ্ছে সিঙ্গাপুর। শনিবার দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী গ্যান কিম ইয়ং বলেছেন, ঘরভিত্তিক ব্যবসা, লন্ড্রি সেবা ও সেলুনের মতো সীমিত কার্যক্রম আবার চালু হবে ১২ মে থেকে। ছোট দলে ভাগ হয়ে ১৯ মে থেকে স্কুলে যেতে পারবে কিছু শিক্ষার্থী। দেশটিতে সংক্রমণ কমতে থাকায় অর্থনীতির চাকা সচল করতে ধীরে ধীরে অন্য কাজও শুরু হবে। তবে সবকিছু করা হবে সংক্রণের ঝুঁকি মাথায় রেখেই। সিঙ্গাপুরে এ পর্যন্ত ১৭ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত। তাদের মধ্যে বেশির ভাগই অভিবাসী শ্রমিক, যারা গাদাগাদি করে ডরমেটরিতে থাকেন।- যুগান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

এবার কে মারা যাবে বাবা, তুমি না আমি?

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে মা ও নানীর। বাড়িতে কেবল বাবা ও ছেলে। প্রিয়জনদের হারিয়ে ভীত ছেলে বাবাকে প্রশ্ন করল- এবার কে মারা যাবে বাবা? তুমি না আমি? যুক্তরাজ্যে করোনা মহামারি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে- প্রতি সেকেন্ডে আক্রান্ত হচ্ছেন মানুষ। মৃত্যুও সমান তালে বাড়ছে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম স্কাই নিউজ তাদের এক প্রতিবেদনে […]

Subscribe US Now