৩১ বছর পর অক্ষত মৃতদেহ উদ্ধার

৩১ বছর পর ধরে নিখোঁজ থাকা রুশ পর্বতারোহীর হিয়ামিত মৃতদেহ সন্ধান পাওয়া গেছে ইউরোপের সর্বোচ্চ পর্বতমালায়। রাশিয়ার দক্ষিণাঞ্চলে মাউন্ট এলব্রুসে এলেনা বাজিকিনার অক্ষত মৃতদেহটি পাওয়া যায়। দীর্ঘ বছরে বরফের নিচে তার দেহটি হয়ে গেছে মোমের পুতুলের মত। ১৯৮৭ সালে ছয় বন্ধুসহ ৩৬ বছর বয়সী এ পর্বতারোহী বরফ ধসের শিকার হয়ে নিহত হন।

সমুদ্রপৃষ্ট থেকে চার হাজার মিটার ওপরে একটি পর্যটক দল এলেনার মৃতদেহের সন্ধান পায়। তার সাথে ছিল তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়নের পাসপোর্টটিও।

রাশিয়ান কর্তৃপক্ষের প্রকাশ করা এক ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, উদ্ধারকারী দল তার দেহ থেকে ভারি শীতের জ্যাকেট ছাড়াতে চেষ্টা করছেন। পর্বতারোহনের সময় এ পোষাক পরিহিত ছিলেন তিনি।

স্থানীয় পত্রিকা প্রাভদা জানাচ্ছে, এলেনা ছিলেন অবিবাহিত। সে সময় তিনি মস্কো সায়েন্টিফিক ইনস্টিটিউটে কাজ করতেন। পর্বতারোহনের প্রতি ছিল তার প্রচণ্ড প্রেম।

এলেনার পিতামাতা কেউই বেঁচে নেই এখন আর। পত্রিকায় তার মৃতদেহের সন্ধান পাওয়ার সংবাদ দেখে চাচাতো ভাই বলেন, সব সময় তার পরিবার বিশ্বাস করত যে সে বেঁচে আছে। আমরা এলেনার জন্য ৩০ বছর ধরে অপেক্ষা করে ছিলাম।তিনি বলেন, অঞ্চলটি ছিল অনেক বিপদজনক। তার নিখোঁজ হবার অনেক কারণ আমরা ভেবেছি। আমরা এও আশঙ্কা করেছিলাম যে, তাকে হয়ত অপহরণ করে কোথাও আটকে রাখা হয়েছে।

এলেনাসহ নিখোঁজ তার ছয় বন্ধুর সন্ধান পেতে ব্যর্থ হয় সোভিয়েত উদ্ধারকারী দল। তারা সবাই ছিল মস্কোর লেনিন ট্যুরিস্ট ক্লাবের সদস্য। এলেনার দেহ খুঁজে পাওয়া গেলেও এখনও নিখোঁজ রয়েছে তার বন্ধুরা।

শর্টলিংকঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *