প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণ করতে গিয়ে লিঙ্গ হারালেন যুবক

চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদায় প্রবাসী স্ত্রীকে ঘরে ঢুকে ধর্ষণ করতে গিয়ে লিঙ্গ হারালেন আরিফুল ইসলাম (৩৫) নামের এক যুবক। তিনি উপজেলার মদনা গ্রামের আব্দুল আলিমের ছেলে।

বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় আজ শুক্রবার দুপুরে দামুড়হুদা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায় বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় দামুড়হুদা উপজেলার মদনা গ্রামের জনৈক প্রবাসীর স্ত্রী (২৮) ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। বাড়িতে একা থাকার সুযোগ পেয়ে একই গ্রামের আব্দুল আলিমের ছেলে লম্পট আরিফুল তার ঘরের দরজায় করা নাড়ে। প্রবাসীর স্ত্রী কিছু না বুঝে দরজা খুলতেই ঘরে ঢুকে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালায় আরিফুল।

এসময় ওই নারী নিজেকে বাঁচাতে চিৎকার করে গ্রামবাসীকে ডাকতে থাকে। পরে ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে ঘরের ভিতর থাকা বটি দিয়ে আরিফুলের লিঙ্গে কোপ মারেন। এতে আরিফুল মারাত্মকভাবে রক্তাক্ত যখম হন।

পরে এলাকাবাসীরা আরিফুলকে উদ্ধার করে স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করেন। অবস্থার অবনতি হলে তাকে রাজশাহী হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

এ ঘটনায় ওই নারী বাদি হয়ে দামুড়হুদা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

উৎসঃ   dailynayadiganta
শর্টলিংকঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *