আইটেম গার্লদের পারিশ্রমিক কত!

আইটেম নম্বর বর্তমানে সিনেমায় আলাদা মাত্রা যোগ করে। যে সিনেমার আইটেম নম্বর যত জনপ্রিয়, সেই সিনেমা নিয়ে দর্শকদের আলোচনা তত বেশি। বলিউড সিনেমা থেকে শুরু হওয়া এসব আইন্টেম নম্বরগুলো পপুলার হয়েছে টলিউড, ঢালিউডেও। আসুন জেনে নিই বলিউডের জনপ্রিয় আইটেম গার্লদের পারিশ্রমিকের অঙ্কটা কত।

কারিনা কাপুরঃ
অভিনেত্রী হিসেবেই তার জনপ্রিয়তার সঙ্গে সঙ্গে আইটেম গার্ল হিসেবেও রয়েছে তার দাপট। ডন সিনেমার ইয়ে মেরা দিল থেকে মশুরু করে ফেবিকল, করিনার সব আইটেম নম্বরই ভক্তদের পছন্দের। আর আইটেম গার্ম হিসেবে কারিনা প্রতিটি গানের জন্য চার্জ করেন ৫ কোটি রুপি।

সানি লিওনঃ
বলিউডের আইটেম নম্বর নিয়ে কথা বললে সে তালিকায় সানি লিওন থাকবেন না, আমনটা হতেই পারে না। সিনেমা থেকে আইটেম নম্বরগুলোই সানিকে বেশি জনপ্রিয় করে তুলেছে সে বিষয়ে কারো দ্বিমত নেই। বেবি ডল কিংবা লাইলা সব গানকেই আলাদা মাত্রা যোগ করেছে আবেদনময়ী এ অভিনেত্রী।

একটা আইটেম নম্বর করতে সানি  নেন ৩ কোটি রুপি।

মল্লিকা শেরাওয়াতঃ
বেলি ডান্স হোক বা নাচের অন্য কোনও ধরণ বলিউডে মল্লিকা শেরাওয়াতের বিকল্প পাওয়া দুষ্কর। গুরু সিনেমাতে মাইয়া মাইয়া গানের সঙ্গে তার নাচ এখনও ভুলতে পারেনি দর্শক। প্রতিটি আইটেম নম্বরের জন্য দেড় কোটি রুপি নেন এ আইটেম গার্ল।

মালাইকা আরোরাঃ
আইটেম গান দিয়েই বলিউডে পা রেখেছিলেন মালাইকা অরোরা খান। চলন্ত ট্রেনের উপরে সেই ছাঁইয়া ছাঁইয়া গানে মালাইকার নাচ মন ছুঁয়েছিল দর্শকদের। বহুদিন পর আবার ‘পটাখা’ ছবিটিতে একটি আইটেম নম্বরে দেখা গিয়েছে মালাইকাকে। একটি আইটেম নম্বরের জন্য এক কোটি করে রুপি নেন মালাইকা।

বিপাশা বসুঃ
আইটেম গার্ল হিসেবে বিপাশা বসুরও বেশ মজবুত অবস্থান রয়েছে। ফুঁক দে হোক কিংবা বিড়ি জ্বালাইলেতে বিপাশার উপস্থাপনা ছিল অনন্য। আর একটি আইটেম নম্বরের জন্য বিপাশা নেন ১ কোটি রুপি।

জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজঃ
অন্যান্য নায়িকাদের মত পিছিয়ে নেই জ্যাকুলিনও। আপকা কিয়া হোগা, জাদু কি ঝাপ্পি, এক দো তিনের মত এসব আইটেম নম্বরে জ্যাকুলিন চার্জ করেন ৪০ লক্ষ রুপি।

সীমা রেড্ডিঃ
বলিউডের আইটেম নম্বরের দৌড়ে পিছিয়ে নেই সমীরা রেড্ডিও। সমীর প্রায় ২০-২৫ লক্ষ রুপি করে নেন প্রতিটি আইটেম নম্বরের জন্য।

সূত্রঃ আনন্দবাজার

, , , , , , ,
শর্টলিংকঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *